• বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন

বুড়িচংয়ে বন্দুকযুদ্ধে ৩ডাকাত নিহত,ওসি সহ আহত ৫পুলিশ সদস্য!!

Reporter Name / ৬৮ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আব্দুল্লাহ আল মামুন ভূঁইয়া(বাবু)-(কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি):কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার পীর যাত্রাপুর ইউনিয়নের কোমাল্লা গ্রামে পুলিশের সঙ্গে ডাকাতদলের বন্দুক যুদ্ধে ৩ আনঃ জেলা কুখ্যাত ডাকাত সর্দার নিহত হয়েছে।এতে বুড়িচং থানার ওসিসহ ৫পুলিশ আহত হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে ৭টি মুখোশ,একটি পিস্তল,১টি পাইপগান,৪রাউন্ড গুলিসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার।
পুলিশ সূত্র জানায় রোববার দিবাগতরাত আড়াইটায় জেলার বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের কোমাল্লা গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে।
আহতরা হলেন-বুড়িচংয়ের ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস,এসআই মো:মোয়াজ্জেম,এএসআই মহিউদ্দিন,এসআই পুষ্প বরণ চাকমা ও এক পুলিশ কনস্টেবল।

বুড়িচং থানার ওসি তদন্ত সাফায়েত হোসেন জানান- রাত আড়াইটায় বুড়িচং উপজেলার কোমাল্লা গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে যায়।পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েঁ।পুলিশও আত্ম রক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়েঁ।খবর পেয়ে থানা থেকে পুলিশের আরেকটি টিম ঘটনাস্থলে যায়।এসময় ৩ডাকাত গুলিবিদ্ধহন। ৫পুলিশ আহত হয়।গুলিবিদ্ধ ৩ডাকাতকে কুমেক হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।পরবর্তীতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই সহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে ডিবিপুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়।পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করে ডাকাতদল পিঠু হটে পালিয়ে গেছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল,৪রাউন্ড গুলি,একটিপাইপগান,২টিছোড়াঁ,১টি ডেগার,৭টি মুখোশ,টর্চ ২টি,৩টি স্কু ডাইভার,৩টি মোবাইল, ১টি জিআইপাইপ,গুলির খোসা উদ্ধার করে।
পুলিশের সাথেবন্দুকযুদ্ধে নিহতরা হলেন
বুড়িচং উপজেলার জগতপুর এলাকার মৃত আবুল হাশেমের ছেলে ডাকাত অলি মিয়া(৪২),দেবিদ্বার উপজেলার চরবাকর এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে বাবুল মিয়া(৩৮) ও ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার গোপাল নগর এলাকার তাজুল ইসলামের ছেলে এরশাদ মিয়া(২৬),নিহত ডাকাতদের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category