• মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৫৪ অপরাহ্ন
Headline
যেভাবে পাওয়া যাবে ‘লকডাউন মুভমেন্ট পাস লকডাউনে এলাকা না ছাড়তে ব্যাংক কর্মচারীদের কড়া নির্দেশ, বন্ধ ব্যাংক ! কাল থেকে সর্বাত্মক লকডাউন, নতুন বিধিনিষেধে যা করা যাবে, যা যাবে না নিজেদের চালানো তাণ্ডবের প্রতিবাদে হেফাজতের নায়েবে আমিরের পদত্যাগ, নতুন নায়েবে আমির মাওলানা আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ হাসান ! কক্সবাজারে ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন’ ২ সহস্রাধিক গুলি উদ্ধার ঝিনাইদহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুই নারীর মৃত্যু ! ‘যাদের কাছে জীবনের চেয়ে ধর্ম বড়, তাঁরা মেলায় গেছেন’ চট্টগ্রামে ব্যাংক কর্মকর্তার আত্মহত্যা, যুবলীগ নেতাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা আজ জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ সন্ধ্যায় রাজধানীর থানায় থানায় বাঙ্কার, লাইট মেশিনগান পাহারা

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে রাজাকারের নামে সড়কের নামকরণের সাইনবোর্ড অপসারণ !

Reporter Name / ৬১ Time View
Update : রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে উপজেলা পরিষদ এবং প্রশাসনকে না জানিয়ে, ব্যক্তিগত উদ্যোগে তালিকাভুক্ত রাজাকারের নামে সাইনবোর্ড টাঙিয়ে সড়কের নামকরণের চেষ্টা করার পর সেই সাইনবোর্ড অপসারণ করেছে প্রশাসন। উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ কয়েকদিন দিন আগে তার বাবা করিম মাস্টারের নামে ‘ইলিয়টগঞ্জ বাজার হতে বীরতলা গ্রাম হয়ে টামটা গ্রাম পর্যন্ত সড়কের নামকরণ করে সেখানে সাইনবোর্ড স্থাপন করে। এ নিয়ে স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী বিষয়টি জানার পর তিনি তার ফেসবুক ওয়ালে “দাউদকান্দিতে রাজাকারের নামে রাস্তার নামকরণ” শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দেন। স্ট্যাটাসটি দেয়ার পরপরই দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল ইসলাম খানের নজরে আসলে রাজাকারের নামে নামকরণ সাইনবোর্ডটি অপসারণের ব্যবস্থা করেন তিনি।

মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী’র স্ট্যাটাসের পরপরই স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যেও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। তারা সাইনবোর্ড অপসারণ এবং এই অপকর্মের হোতাদের শাস্তির দাবি জানান। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দাউদকান্দি উপজেলার ১৫ নাম্বার তালিকাভুক্ত রাজাকার ছিল করিম মাস্টার। উপজেলায় সংরক্ষিত তালিকায় করিম মাস্টারের নাম আছে। উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধারাও একাত্তরে করিম মাস্টারের রাজাকারের ভূমিকার কথা জানেন। স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি বাহিনীর দোসর ও থানা শান্তি কমিটির সদস্যও ছিল মৃত আব্দুল করিম মাস্টার। সূত্র জানায়, দাউদকান্দির ইলিয়টগঞ্জের ঐ সড়কটি এখন একজন তালিকাভুক্ত বীর মু্ক্তিযোদ্ধার নামে নামকরণ করা হবে।

স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনকালে এই সঠিক পদক্ষেপের জন্য দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল ইসলাম খানকে এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মী, সুশীল সমাজ ও দেশপ্রেমিক তরুণ প্রজন্ম সাধুবাদ জানিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল ইসলাম খান বলেন, তালিকাভুক্ত রাজাকারের নামে সড়কের নামকরণের বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। উপজেলা চেয়ারম্যানের ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখে ২০১৬ সালে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রেরিত তালিকা যাচাই বাছাই করে এবং স্থানীয় বীর মু্ক্তিযোদ্ধাদের সাথে কথা বলে আমি তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category