• শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন
Headline
নবীগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নারী-পুরুষ সহ আহত ১৫, আশংখাজনভাবে ২জন সিলেট প্রেরন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী জসিমের ভরসা এই টং দোকান করোনায় আক্রান্ত রাজশাহী-২ (সদর) আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশাকে ঢাকায় রেফার্ড রংপুরে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩২৪, বাড়ছে আক্রান্ত কারা কারা মুভমেন্ট পাস ছাড়া বাইরে যেতে পারবেন নোয়াখালীতে সুইসাইড নোট লিখে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা ! পিকআপ ভর্তি আনারসের ভিতর থেকে গাঁজাসহ উদ্ধার ! যন্ত্রাংশের প্যাকেটে রাখা বোমার বিস্ফোরণে শিশু নিহত ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করবে যুক্তরাষ্ট্র দেশে করোনায় আরও ৯৪ জনের মৃত্যু

জয়পুরহাটে দ্বিতীয় বারের মতো পৌর পিতা হলেন- মেয়র মোস্তাক

নিরেন দাস,জয়পুরহাট প্রতিনিধি / ৪৪ Time View
Update : সোমবার, ১ মার্চ, ২০২১

দেশের পঞ্চম ধাপে উৎসবমুখর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে জয়পুরহাট পৌরসভার নির্বাচন-২০২১।
রবিবার সকাল ৮টা থেকে পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডের মোট ২২টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে এ ভোটগ্রহণ।
এ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী ও বর্তমান পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক ২৪ হাজার ৪ শত ৯০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়ে দ্বিতীয় বারের মতো আবারো পৌর পিতা হলেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সামছুল হক পেয়েছেন মাত্র ৪ হাজার ১ শত ৬১ ভোট।
এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী দেওয়ান বেদারুল ইসলাম বেদিন পেয়েছেন ৫ শত ৫৮ ভোট, আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী জগ প্রতীকের হাসিবুল আলম পেয়েছেন ১ হাজার ৫ শত ২৫ ভোট ও ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী দেওয়ান জহুরুল ইসলাম পেয়েছেন ৪ শত ১২ ভোট।
রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় জেলা রিটার্নিং ও নির্বাচন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম এ ফলাফল ঘোষনা করেন।
প্রথম শ্রেণীর এ জয়পুরহাট পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৫২ হাজার ২ শত ৭৩ জন। এর মধ্যে ভোট প্রয়োগ করেছেন ৩১ হাজার ২০২ জন ভোটার। বাতিল হয়েছে মাত্র ৫৬ ভোট। আনন্দঘন ও উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্যে দিয়ে ভোট গ্রহণের শুরু থেকেই কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতির পাশাপাশি বাইরেও আ’লীগ প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থক আর নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ব্যাপক থাকলেও বিএনপির সমর্থকদের উপস্থিতি লক্ষ করা যায়নি।
এছাড়াও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার পাশপাশি নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে প্রতিটি কেন্দ্রে অস্ত্রসহ পুলিশ ও আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া ভোটের মাঠে ম্যাজিস্ট্রেটসহ পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি সদস্য মোতায়েন ছিল।
এর আগে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি আক্কেলপুর ও কালাই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর জয় ও জয়পুরহাটে পুনরায় আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক নির্বাচিত হওয়াই জেলার পাঁচটি উপজেলায় আনন্দ মিছিল সহ মিষ্টি বিতরণ করছেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ সহ সকল সহযোগী অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category