“কুমিল্লা করোনার ৫ম হটস্পট”

0
18

আব্দুল্লাহ আল মামুন ভূঁইয়া-নিজস্ব প্রতিবেদকঃসারাদেশের মধ্যে দিন দিন কুমিল্লায় করোনার পরিস্থিতি খুবই খারাপ চলেছে।বাংলাদেশের আক্রান্ত এলাকাগুলোর তালিকার শীর্ষ ৫ এ অবস্থান করছে কুমিল্লা।ঢাকা,চট্টগ্রাম,নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুরের পরই কুমিল্লার অবস্থান।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।এদের মধ্যে দুইজন পুরুষ ও দুইজন নারী।এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ৫ দিনে মারা গেছে ২৮ জন।

শুক্রবার(২৬জুন) দুপুরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারি পরিচালক ডাঃসাজেদা খাতুন এসব তথ্য জানিয়েছেন।তিনি আরও জানান,২৪ ঘণ্টায় মৃতরা হচ্ছেন চান্দিনা উপজেলার কাশারিখোলা গ্রামের ইদ্রিস মিয়া(৬০),সদর উপজেলার বদরপুর গ্রামের হনুফা বেগম(৪৬),চান্দিনার শাহানার গেম(৬০) ও লাকসাম উপজেলার গোবিন্দপুরের আবদুল মান্নান (৬৫)।এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত এই হাসপালে করোনা পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে ১০৯জন।এদের মধ্যে পজিটিভ ১৪জন,উপসর্গে মৃত ৯৫জন।বর্তমানে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি আছে ১১৪জন।এদের মধ্যে করোনা পজিটিভ ৪২জন,করোনা উপসর্গ নিয়ে ৭২ জন।
জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের চিকিৎসক মোঃএনামুল হক বলেন,জেলায় গত ৯ এপ্রিল প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়।এরপর গত ৭৫ দিনে(আড়াই মাসে) করোনা শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৮৭৩ জন।এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪০ জন।মারা গেছেন ৮৫ জন।শনাক্ত হওয়া অপর ১ হাজার ৭৪৮ জন চিকিৎসাধীন আছেন।গত ১ জুন এ জেলায় করোনা শনাক্ত ছিল ১ হাজার ২০ জন,সুস্থ হয়েছে ১৪২ জন ও মারা গেছেন ২৮ জন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে,কুমিল্লায় এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪০ জন।এতে জুন মাসেই সুস্থ হয়েছেন ৯০৫ জন।বাকিরা মে ও এপ্রিল মাসে সুস্থ হয়েছেন।
খোঁ’জ নিয়ে জানা গেছে,গত ২৫ মে কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম ও পরদিন দাউদকান্দি পৌরসভার মেয়র নাঈম ইউসুফের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।তাঁরা ১৪ দিন বাসায় আইসোলেশনে থেকে সুস্থ হয়েছেন।গত সপ্তাহ থেকে তাঁরা অফিস করছেন।

ডেপুটি সিভিল সার্জন মো.সাহাদাত হোসেন বলেন,জেলায় এ পর্যন্ত ১৭ হাজার ৫৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।এর মধ্যে গত মঙ্গলবার পর্যন্ত ১৫ হাজার ৪১২ জনের প্রতিবেদন পাওয়া গেছে।আরও ১ হাজার ৬৪৫ জনের নমুনার ফল আসেনি।বুধবার থেকে কোনো নমুনা পরীক্ষার ফল সিভিল সার্জন কার্যালয়কে দেওয়া হচ্ছে না।আমরা শনাক্ত রোগীদের ফলোআপ ও সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here