মানবতার ফেরিওয়ালা জিএমপি পুলিশে কর্মরত কনেস্টেবল রুবেল মিয়া।

0
13

শারমীন সুলতানা মিতু: করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে সন্দেহে গাজীপুর মহানগরীর সাইনবোর্ড গাছা থানা এলাকায় গত ১৫ ই মে রাত দেড়টা পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে পাশে পড়ে থাকা লাশটির কাছে যায়নি কেউ। অবশেষে মরদেহ রিকশাভ্যানে তুলে এক পুলিশ সদস্য চালিয়ে থানায় নিয়ে যান বলে খবর পাওয়া গেছে।

আনুমানিক ৫০-৬০ বছর বয়সী মৃত ওই বৃদ্ধের পরনে সাদা রংয়ের হাফ শার্ট, লুঙ্গি ও মাথায় সাদা রঙের টুপি ছিল।

মৃতের পরিচয় পাওয়া যায়নি জানিয়ে গাছা থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য শনিবার সকালে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে গাছা থানার পুলিশ কনস্টেবল রুবেল মিয়া জানান, শুক্রবার রাত ২টার দিকে সাইনবোর্ড এলাকার ডিউটি করছিলেন। এমন সময় তিনি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের উপর ৫০-৬০ বছর বয়সী অজ্ঞাত এক বৃদ্ধ অচেতন অবস্থায় পড়ে রয়েছেন বলে খবর পান।

“অনেকক্ষণ ধরে তার নিথর দেহ রাস্তার পাশে পড়ে থাকলেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সন্দেহে কেউ তার পাশে যায়নি।

তবে কনস্টেবল রুবেল মিয়া গিয়ে দেখতে পান বৃদ্ধে দেহ রক্তাক্ত। তার ধারণা অজ্ঞাত কোনো গাড়ি ওই ব্যক্তিকে চাপা দিয়েছে।

রাত গভীর হওয়ায় বৃদ্ধের দেহটি বহন করার জন্য কোনো গাড়ি পাচ্ছিলেন না তিনি। এ সময় এক রিকশা-ভ্যান চালককে লাশটি থানায় নেওয়ার অনুরোধ করেন। তবে

“সেই চালকও তার ভ্যানে লাশটি না তুলতে আমাদের হাতে-পায়ে ধরেন।

“পরে নিজেই ভ্যানটিতে লাশটি তুলে চালিয়ে থানায় নিয়ে যাই।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here