কুমিল্লা সদরের গোমতী গিলে খাচ্ছেন প্রশাসন ছাত্রলীগ, যুবলীগ হাইব্রিড নেতারা এতো নাম তালিকার খাতায় ধরেনা!!

0
14

কুমিল্লা আদর্শ সদরের গোমতী নদীর বাঁধ সংলগ্ন রাস্তা গুলো ভাঙ্গা চোরা মাটি ও বালু বোঝাই ট্রাক্টরে,জন ভোগান্তি চরমে, প্রতিরক্ষা বাঁধ হুমকিতে।ফসলি জমির মাটি কেটে কৃষকদের পেটে লাথি, হাইব্রিড নেতা আজ কোটিপতি বটে সাথে কিছু অসাধু প্রশাসনের লোকেরাও।

সরজমিনে প্রকাশ:
হুমকিতে প্রতিরক্ষা বাঁধ,বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি ও গাছগাছালি,গোমতী নদীতে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলন করায়, গভীর গর্তে বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি ও গাছগাছালি,কৃষক দের চোখে পানি!

সরজমিনে জানাগেছে,কুমিল্লা সদরের পালপাড়া থেকে সীমান্তবর্তী গোলাবাড়ি পর্যন্ত গোমতী নদীতে শতাধিক মেশিনে বালু উত্তোলন ও চরের মাটি কাঁটার বেপরোয়া প্রতিযোগিতা চলছে।

গোমতীর উভয় পাড়ে ২০টিরও অধিক মাহালে তা বিক্রি হচ্ছে প্রতি বছরের ডাকের মাধ্যমে এই ডাকের অর্থ কে নেয়! সংরাইশের ব্রীজের এখানে ২৪ ঘন্টা পুলিশ থাকা সত্বেও বালু কি ভাবে উত্তোলন করে অসাধুরা যদিও সরকারের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে মানছেন না আইনের রক্ষক নামের প্রশাসন গোমতি ভক্ষক! স্থানীয়দের আশঙ্কা ভারত থেকে আসা গোমতী নদীর পানি বাড়লেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়বে শহর রক্ষা বাঁধ।দিবারাত্রি গোমতীর বালু ও চরের মাটি ভর্তি ট্রাক্টর ও ড্রামট্রাকে রাস্তা গুলো ভেঙে ধুলোবালি জনজীবন দুর্বিষহ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় যে এইসব অসাধুদের এত তালিকা যার তালিকা আমাদের করার মতো খাতা নেই ছাত্রলীগ, যুবলীগ, প্রশাসন, এমপি, সহ টোকাইরাও তবে সকলের তালিকা প্রশাসন ঠিকি যানে তাই তালিকা তুলেই দিয়ে কি হবে কেবা করবে কার বিচার প্রায় ৩০ বছরের আমাদের দেখা এই সমস্যা সমাধান আসেনি আর কখনো আসবে কিনা সেটা জানেনা কুমিল্লা বাসী, জানিনা আমরাও, এমন প্রশ্নের জবাব পাওয়া যায়না কারো কাছেই। রুবেল মাহামুদের পাঠানো তথ্যচিত্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here